স্কুল ছেড়ে বাংলা ছবির জনপ্রিয় নায়িকা হয়েছেন যে ১০জন

অনেকেই জানতে চান প্রিয় নায়িকার শিক্ষাগতা যোগ্যতা কি? আমাদের চলচ্চিত্রে এমন কজন নায়িকা আছেন, যারা স্কুলছাত্রী থাকাকালীন চলচ্চিত্রে পা রাখেন। অভিজ্ঞতায় তারা পরবর্তীতে হয়ে উঠেছেন ঢাকাই সিনেমার বড় বড় স্টার। এরমধ্যে বেশিরভাগই আর পড়াশুনাটা ঠিক মতো চালিয়ে যেতে পারেননি।

এ তালিকায় প্রথমেই উল্লেখ করা যায় চিত্রনায়িকা শাবানার নাম। ১৯৬৭ সালে যখন ‘চকোরী’ সিনেমার মাধ্যমে নায়িকা হিসেবে পর্দায় অভিষেক। তখন তিনি স্কুলে পড়েন। শাবানা প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় স্কুলের গণ্ডি পার হতে পারেননি। শাবানার প্রকৃত নাম রত্না। সার্টিফিকেটে নাম আফরোজা সুলতানা।

চিত্র পরিচালক এহতেশাম তার শাবানা নামটি দেন। ১৫ বছর বয়সে নায়িকা হওয়া শাবানা ১১ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। শোনা যায়, শিশুশিল্পী হিসেবে তিনি যখন ১৯৬১ সালে কাজ শুরু করেন। তখনই প্রতিষ্ঠানিক পড়াশুনা ছেড়েছেন।

১৯৬৯ সালে ‘শেষ পর্যন্ত’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে নায়িকা হিসেবে অভিষেক ঘটে সুন্দরী অভিনেত্রী ববিতার। ১৯৬৯ সালের ১৪ আগস্ট চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায় এবং ওইদিনই তার মা মারা যান। তবে তিনি শিক্ষিত পরিবারের মেয়ে। অতি অল্প বয়সে শোবিজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

তিনি যখন নায়িকার খাতায় নাম লেখান, তার বোন তখন জনপ্রিয় নায়িকা। স্কুলের গন্ডি না পেরুতে পারলেও ইংরেজিসহ বেশকিছু ভাষায় তিনি পারদর্শি। যশোর দাউদ পাবলিক বিদ্যালয় থেকেই প্রতিষ্ঠানিক জ্ঞানের পাঠ চুকিয়েছেন।

মাত্র ১৩ বছর বয়সে শাবনূর নাকি চলচ্চিত্রে পা রাখেন। ১৯৭৯ সালে জন্মগ্রহণ করা এই অভিনেত্রীর পারিবারিক নাম কাজী শারমিন নাহিদ নূপুর। চিত্র নির্মাতা এহেতেশাম শাবনুর নামটি রাখেন। তিনিও স্কুলের গন্ডি পেরুনোর আগেই সিনেমায় আসেন। শাবনূরের প্রথম চলচ্চিত্র ‘চাঁদনী রাতে’।

চলচ্চিত্র জগতের আরেক উজ্জ্বল নক্ষত্র পূর্ণিমা। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ সিনেমায় যখন তিনি অভিনয় করেন, তখন তিনি নবম শ্রেনীর ছাত্রী। পরবর্তীতে তিনি আর কোথায় পড়াশুনা করেছেন বলে শোনা যায়নি।

ঢাকাই সিনেমার নতুন সেনশেসন পূজা চেরি। অনেকে চঞ্চলা শাবনুরকে তার মধ্যে খুঁজে পায়। শিশুশিল্পী হিসেবেই অভিষেক সিনেমায়। সেটা প্রায় বছর পাঁচ হয়ে গেছে। গেল দু বছর থেকে নায়িকা।

‘নূরজাহান’ দিয়ে অভিষিক্ত হলেও দর্শক পূজার অভিনয়ের জাদু দেখেছেন ‘পোড়ামন ২’ ছবিতে। এবছর এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে এই নায়িকা। এখন দেখা যাক তার পূর্বসূরীদের পথে হাটবেন, নাকি পড়াশুনাটাও ঠিকমতো চালিয়ে যেতে পারবেন।

এছাড়াও সোনিয়া, অন্তরা, রত্নারাও নায়িকা হয়েছেন স্কুলে থাকতে। এরমধ্যে সোনিয়া চিত্রজগত ছেড়ে বর্তমানে লন্ডনে স্বামী সন্তান নিয়ে সুখে দিন কাটাচ্ছেন। অন্তরা চলে গিয়েছেন পরপারে, স্বামী খুন করেছে বলে অভিযোগ আছে। রত্না আইন বিষয়ে মাস্টার্স করেছেন।