আমি গ্যালারিতে থাকলে মুশফিক বেশি উজ্জীবিত হয়! তাই যাচ্ছি

মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশের অধিনায়ক থাকাকালীন সময়ে গ্যালারিতে পরিচিত মুখ ছিলেন তার বাবা মাহবুব হামিদ। গ্যালারিতে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের ‘অবিভাবকে’র মতো হয়ে উঠেছিলেন তিনি। এখনও অবশ্য মাঠে যান, কিন্তু আগের মতো নিয়মিত নয়। বিশ্বকাপের প্রায় অর্ধেকটা শেষ। মাহবুব হামিদ এখনো দেশেই। তবে কদিনের মধ্যে ছেলের এবং বাংলাদেশের খেলা দেখতে উড়াল দেবেন। তার আগে বললেন, বিশ্বকাপে মুশফিকুর রহিম যে সেঞ্চুরি পাবেন সেটা আগে থেকেই জানতেন তিনি।

গতকাল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি পেয়েছেন মুশফিক। তার ৯৭ বলে ১০২ রানের অপরাজিত ইনিংসটি অবশ্য বাংলাদেশকে জেতাতে পারেনি, তবে সবার মন জিতেছেন মুশফিক। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরি পেয়েছেন। প্রতিপক্ষ দলে বিশ্বের সেরা দুই বোলারের মধ্যে একজন মিচেল স্টার্ক ছিলেন। প্যাট কামিন্সের মতো অন্যতম সেরাও ছিলেন। কিন্তু কেমন বুক চিতিয়েই না ব্যাটিং করলেন মুশফিক।

মাহবুব হামিদ জানালেন, ব্যাটকে তলোয়ার বানানোর প্রস্তুতি নিয়েছিলেন দেশেই। মুশফিকের বাবা বলেন, ‘এবারের বিশ্বকাপকে ঘিরে মুশফিক যেভাবে নিজেকে প্রস্তুত করেছিল, তাতে আত্মবিশ্বাসী ছিলাম, ও একাধিক সেঞ্চুরি পাবে। এর আগে এক ম্যাচে ৭৮ রান করে আউট হওয়াতে হতাশ হয়েছিলাম। কিন্তু মুশফিক যে সেঞ্চুরি পাবে, সে ব্যাপারে আত্মবিশ্বাস হারাইনি।’

মুশফিকের আরও সেঞ্চুরি আসছে, বললেন মাহবুব হামিদ, ‘বৃহস্পতিবারের ম্যাচে সেঞ্চুরি মুশফিকের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। এখন ওর ব্যাট থেকে আরেকটি সেঞ্চুরির অপেক্ষায় আছি। আমি গ্যালারিতে থাকলে মুশফিক বেশি উজ্জীবিত হয়। এই কারণেই ওকে উৎসাহ দিতে ইংল্যান্ড যাচ্ছি।’

ছেলের উদ্দেশ্যে মাহবুব হামিদের পরামর্শ, ‘এই সাফল্যে থেমে গেলে চলবে না। সামনে আরও ভালো খেলতে হবে। প্রতিটি ম্যাচকেই ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ মনে করে পারফর্ম করতে হবে।