টেনেটুনে আড়াইশও করতে পারল না পরাক্রমশালী ভারত!

বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ বলা হয় ভারতকে। এবারের বিশ্বকাপে হট ফেবারিট তারা। সেই ভারতই কিনা আজ আফগানিস্তানের বোলারদের কাছে নাকানি চুবানি খেয়েছে! নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট খুঁইয়ে তারা তুলতে পেরেছে মাত্র ২২৪ রান! বল হাতে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ নবি এবং গুলবাদিন নাইব। বাকী চার বোলার ১টি করে উইকেট ভাগ করে নিয়েছেন। সবচেয়ে ভয়ংকর হয় ওঠা মুজিব উর রহমান ১০ ওভারে মাত্র ২৬ রান দিয়েছেন।

সাউদাম্পটনের দ্য রোজ বলে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ফর্মের তুঙ্গে থাকা রোহিত শর্মাকে হারায় ভারত। মুজিব উর রহমানের বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে যান ১০ বলে ১ রান করা রোহিত। এরপর উইকেটে এসেই ব্যাটে ঝড় তোলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তবে তার সঙ্গী লোকেশ রাহুল অস্বস্তিতে ছিলেন। শেষ পর্যন্ত মোহাম্মদ নবির বলে হজরতুল্লাহ জাজাইয়ের তালুবন্দি হন ৫৩ বলে ৩০ রান করা রাহুল। ৪৮ বলে ৪ বাউন্ডারিতে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন বিরাট কোহলি। তবে ইনিংস বড় করতে পারেননি। ৬৩ বলে ৬৭ রান করা বিশ্বের ভয়ংকরতম এই ব্যাটসম্যানকে ঘূর্ণিবলে ঘায়েল করেন অল-রাউন্ডার মোহাম্মদ নবি।

বিজয় শংকর ২৯ রান করে রহমত শাহর বলে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়েন। রশিদ খানের করা ৪৫তম ওভারর দ্বিতীয় বলে নিশ্চিত রান-আউট থেকে অদ্ভুতভাবে বেঁচে যান কেদার যাদব। তবে পরের বলেই ৫২ বলে ২৮ করা ধোনিকে চোখ ধাঁধানো নৈপূণ্যে স্টাম্পিং করে দেন উইকেটকিপার ইকরাম। আফতাব আলমের বলে অল-রাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডিয়া (৭) ইকরামের গ্লাভসবন্দি হন। একপ্রান্ত আগলে রাখা কেদার যাদব হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন ৬৬ বলে। শেষ ওভারে এক বলের ব্যবধানে মোহাম্মদ শামি (১) আর কেদার যাদবকে (৫২) তুলে নেন গুলবাদিন নাইব। ৫০ ওভারে ভারতের স্কোর দাঁড়ায় ৮ উইকেটে ২২৪ রান!

বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত ৫টি ম্যাচ খেলে একটিতেও জিততে পারেনি আফগনিস্তান। পয়েন্ট টেবিলে তাদের অবস্থান সবার নীচে। নামের পাশে কোনো পয়েন্টও নেই। অন্যদিকে বিশ্বকাপের হট ফেবারিট ভারত ৪ ম্যাচে ৩ জয় এবং একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার সুবাদে ৭ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে আছে ভারত। ৬ এবং ৫ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ আর ছয়ে আছে যথাক্রমে শ্রীলঙ্কা এবং বাংলাদেশ।